আপনি যেখানে বাস করেন সেখান থেকে কিভাবে আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন দেখবেন ?

আপনি কি আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনকে পৃথিবীর চারপাশে ঘূর্ণয়মান অবস্থায় দেখতে চান? তাহলে আপনার টেলিস্কোপটি সরিয়ে ফেলুন। যদি আপনি জানতে পারেন যে কখন এবং কোথায় দেখতে হবে তাহলে আপনি তা খালি চোখেই দেখতে পারবেন।

চাঁদের মতো আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন পৃথিবী থেকে দেখা যায় কারণ এটিও চাঁদের মতো সূর্যের আলোকে প্রতিফলন করে। চাঁদের ক্ষেত্রে, তা সূর্যের আলো স্পেস স্টেশনের তুলনায় বেশি প্রতিফলন করে বলে চাঁদকে দিনের বেলায়ও দেখা যায়।

যাইহোক, ২৪ ঘন্টা চক্রে স্পেস স্টেশনকে সকাল আর সন্ধ্যায় মাত্র দুই বার দেখা যায়। সকাল অথবা সন্ধ্যায় স্পেস স্টেশনকে দেখার জন্য সঠিক জায়গা এবং পরিস্থিতি প্রয়োজন। সেই জায়গায় অন্ধকার হওয়া আবশ্যক যেখানে আপনি থাকবেন এবং স্টেশনটি আপনার মাথার উপর দিয়ে 40° বা তার বেশি দিগন্ত দিয়ে তার নিজস্ব কক্ষপথ দিয়ে যাবে।

বেশিরভাগ সময়ে এই পরিস্থিতি কয়েক সপ্তাহে মাত্র একবার তৈরী হয়। এইক্ষেত্রেই নাসা’র Spot The Station ওয়েবসাইট টি কাজে আসবে। আপনাকে শুধু আপনার ঠিকানা লিখতে হবে তাইলেই এই ওয়েবসাইট আইএসএস এর ট্রাজেক্টরি এবং সতর্কতা সহ এটিকে দেখার জন্য ঠিক কখন দেখতে হবে এবং পরবর্তীতে এটি কোন জায়গায় থাকবে তার তথ্য দিয়ে দিবে।

এই ওয়েবসাইট টা এটাও জানতে সাহায্য করে যে কখন কি দেখতে হবে। আমরা সবাই হয়তো রাতের আকাশে প্লেনকে আলো জ্বালিয়ে যেতে দেখেছি। স্পেস স্টেশন ও ঠিক এইরকমই দেখায়। কিন্তু তার কোন লাইট নেই। তাই একে দেখতে পাওয়া একটু কষ্ট। আকাশে হয়ত একে একটা ছোট বিন্দুর মতো মনে হতে পারে কিন্তু এটি আসলে ছয়টি বেডরুমের সমান।

স্পেস স্টেশন একটা প্লেনের থেকেও অনেক দ্রুত উড়ে। এটি ঘন্টায় প্রায় ১৭,৫০০ মাইল বা ২৮,০০০ কিলোমিটার গতিতে উড়ে যেখানে একটি প্লেন ঘন্টায় প্রায় ৬০০ মাইল বা ৯৬৫ কিলোমিটার গতিতে উড়ে, তবুও ভূপৃষ্ঠ থেকে তাদের দূরত্ব তাদের গতির সাথে তুলনা করা হয়না।

রাতে তারার মতো এমন একটি বস্তুর খোঁজ করুন যা তার দিক পরিবর্তন ছাড়াই আকাশে ঘোড়াফেরা করছে এবং এমন কিছু খুজে পেলেই বুঝবেন যে ওইটাই আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন। আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, রাশিয়া এবং অন্যান্য ছয়টি দেশের নভোচারীদের বাসস্থান এবং বিজ্ঞানাগার।

তথ্যসূত্রঃ (—-)

ছবিঃ (—-)

Written By: Zubayer Hossain

24Shares

Check Also

জবির সিএসইর পুননিযুক্ত বিভাগীয় প্রধানের সাথে সফটরিদম কর্মকর্তাদের শুভেচ্ছা বিনিময়

হাফিজুর রহমান:( সফ্টরিদম আইটি থেকে ) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের পুননিযুক্ত বিভাগীয় …

আসলেও ইসলাম কতটা সামাজিক ?

আমাদের সমাজে একটা গোষ্ঠির মাঝে প্রকট একটি ধারণা বাসা বেধে আছে যে সত্যই কি ইসলাম সামাজিক ভাবে উপকৃত? এমন ধারনা তাদের মনে আসার কারনটা ‍খুব বেশি অমূলক নয়। তারা বা আমরা ইসলামকে কতটা জানতে পেরেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *