২০১৯ সালে পাঁচটি শহরের আমুল পরিবর্তন আসবে

গত কয়েক যুগ ধরে পরিবর্তন হচ্ছে আমাদের এই পৃথীবির। ১৯০০ সালে পুরো পৃথিবী জুরে মাত্র ১৬ টি শহর ছিল, যাতে কিনা মাত্র ১০ লক্ষ্য মানুষ বাস করতো।(Change of the world) আর এখন যেমন শহর বেরেছে বেরেছে মানুষের সংখ্যা। বিশ্বের অর্থেরেক বেশি মানুষ যে এখন শহরে বাস করে।

ঝংসান (চিন)


পুরো বিশ্বের অর্থনীতির উপর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ প্রভাব পড়ছে, আমেরিকা ও চীনের বাণিজ্য যুদ্ধের ফলে। এই দুটি দেশ অর্থনিতির ক্ষতির মুখে পরেছে। তারা ৯০ দিনের জন্য এই বানিজ্য যুদ্ধ বন্ধ রেখেছিল গতবছরের ডিসম্বরে। এই যুদ্ধে এক দেশ অন্য দেশেরে আমদানি রপ্তানী পন্যের উপর কর আরপ শুরু করে। এই যুদ্ধ যদিও কিছু দিনের জন্য বন্ধ থাকবে, তবুও ক্ষতি যা হবার তা তো হয়েছে। আমেরিকা ২৫০ মিলিয়ন ডলার কর বসিয়েছিল চিন থেকে আমদানি করার পণ্যের উপর। এভাবে চিনও ১১০ মিলিয়ন কর বসায়। এর ফলে সবকিছুর দাম বেড়ে গেলে মানুষ সেসব পণ্যের উপর থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়।

ছবি: সংগ্রহিত

ফলে রপ্তানির চিনের শহর ঝংসান আর্থিক ক্ষতির মুখের পরে। ঝংসান থেকে রপ্তানী করা ৭০ ভাগ পণ্য যেত আমিরিকায়। একটি শহরের আর্থিক ক্ষতি শহরের চেহারা পাল্টে দিতে পারে খুব সহজে।

বেঙ্গালুরু (ইন্ডিয়া)

বেঙ্গালুরু ইন্ডিয়া।ছবি: সংগ্রহিত

অর্থনীতির দিক থেকে এগিয়ে চলা সবচেয়ে দ্রুততর শহরটির নাম বেঙ্গালুরু। ২০৩৫ সালে পৃথীবির সবচেয়ে দ্রুততম বৃদ্ধিশীল অর্থনীতিতে পরিণত হবে ইন্ডিয়ার শহর বেঙ্গালুরু। আর জিডিপি বেড়ে দাড়াবে ৮.৫ ভাগ। (সোর্স)

চলতি বছর বিভিন্ন দেশে মুদ্রাস্ফিতি থাকা শর্তেও বেঙ্গালুরুর জিডিপি বেড়েছে ঈর্ষনিয় ভাবে, জিডিপি বৃদ্ধির হার হবে ১০.৫%।

বেঙ্গালুরু ইন্ডিয়া।ছবি: সংগ্রহিত

বেঙ্গালুরুর অর্থনীতিতে এমন পরিবর্তন আসার পিছনে বায়োটেক ও অ্যারোস্পেস সেক্টরে উন্নতি কেই ধরা হচ্ছে। আবার চাকরির বেতন এবং ভোক্তার চাহিদার দাম বৃদ্ধিও হচ্ছে বেশ জোড়ে সরে। ইন্ডিয়ার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বেঙ্গালুরু আসার হার বেড়েছে কারন এখানকার অর্থনীতি চোখে পড়ার মত। এর ফলে পানি ও অন্য অন্য মৌলিক চাহিদার উপর প্রভাব পড়ছে।

লন্ডন (ইংল্যান্ড)

লন্ডনের একটা বড় পরিবর্তন নিয়ে দুনিয়া ব্যাপি অনেক আলচনা ও সমালচনা চলছে। ইউরপের সবচে বড় শহরটি হলো এই লন্ডন। ইউরপের অর্থনীতিতেও অনেক বড় অবস্থান ধরে রেখেছে এই শহর, এর অবস্থান পঞ্চম ।

বেক্সিট আন্দলোন । ছবি: সংগ্রহ

বেক্সিট আন্দলোন এর মাধ্যমে ইউরপিয় উনিয়ন থেকে বের হয়ে যেত চাচ্ছে বৃটেন। বৃটেনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট বলছে পার্লামেন্ট যদি এটা মেনে নেয় তবে বৃটেনের উন্নতি আসবে । থেরেসা মে চাইলে কি হবে, যত দুই বছরে পার্লামেন্ট কোন ভাবেই রাজি হয়নি।

বেইজিং (চিন)

২০২২ সালের মধ্যে  বিশ্বের সবচেয়ে বড় অ্যাভিয়েশন মার্কেট পরিচালনা করবে চীন এক্ষেত্রে পিছনে ফেলতে হবে আমেরিকাকে। আর এই ধারনাটি করেছে দ্য ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন । চলতি বছরে এই টার্গেট পুরনে চেষ্টা করছে বেইজিং। বর্তমান বিমান বন্দর বেইজিং ক্যাপিটাল’ এর কিছু এয়ারলাইনসকে শহরটির নতুন বিমানবন্দর ‘বেইজিং ড্যাক্সিং’ সরানোর ব্যাবস্থা নিচ্ছে। চলতি বছরের সেপ্টম্বরে ‘ড্যাক্সিং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট’ খোলার চেষ্টা করে যাচ্ছে বেইজিং।

বেইজিং ক্যাপিটাল এয়ারপোর্ট; ছবি: সংগ্রহ

বর্তমান বেইজিং ক্যাপিটাল পৃথীবির দ্বীতিয় বৃহত্তম বড় বিমানবন্দর। বর্তমানে আটলান্টা হার্টসফিল্ড জ্যাকসন বিমানবন্দর হলো প্রথম স্থান অথিকারি বিমানবন্দর। আটলান্টা হার্টসফিল্ড বছরে ১০০ লক্ষ্য মানুষ কে নিরাপদে যাতা য়াত করার ব্যাবস্থা করে থাকে।

ফ্লাইট গ্লোবালের এশিয়া ফিন্যান্স এডিটর এলিস টেইলরের মতে, নতুন হতে যাওয়া বিমানবন্দর ‘বেইজিং ড্যাক্সিং’ দক্ষিন এশিয়া ও চিনের অভান্তির বাজারে প্রতিযোগিতা বাড়াবে। যুক্তরাষ্ট্র এশিয়াতে আসতে বেইজিং লেভালের সাহায্য নিতে হত । নতুন বিমান বন্দর চালু হলে মানুষের সময় ও অর্থ উভয় সাশ্রয় হবে ।

জাকার্তা (ইন্দোনেশিয়া)

জাকার্তা ইন্দোনেশিয়ার সবচে ব্যাস্ত শহর। পৃথীবির সবচে মিন্মভূমির শহর হলো এই জাকার্তা যেটা কিনা ধিরে ধিরে ডুুবে যাবে সূমুদ্রজলে। জলবায়ুর কারনে যে যে শহর গুলো ডুবে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে জাকার্ত সেই লিস্টের সবার উপরে।

এক কোটি মানুষের বাস এই জাকার্তায় আসলে জলাভূমির উপরেই অবস্থিত। এই শহরটিতে বন্যার সম্ভাবনা সব সময়ই বেশি থাকে।

জাকার্তা: ছবি সংগ্রহ

জনসংখ্যা বাড়ছে খুব, জলবায়ু পরিবর্তনে তাপমাত্রা বাড়ছে অনেক, জমি ব্যবহারে কোন নিয়ম কানুন নেই আর এমনই অনেক কারনে শহরটি আস্তে আস্তে অল্প করে ডুবতে শুরু করেছে সমূদ্রজলে। সবচে খারাপ ব্যাপার হলো ভূগর্ভস্থ পানি এতো বেশি পরিমান তুলে ব্যবহার করা হয় যার প্রভাব পেতে শুরু করেছে জাকার্ত, ভূগর্ভস্ত পানি যত কম ব্যবহার হবে ভূমি তত শক্ত থাকবে। একার পুরো শহর ২ মিটার এর মত ডুবে গিয়েছিল ২০১৩ এর দিকে জাকার্তর উত্তর অংশে ২.৫ মিটার এর মোধ্য ডুবে গেছে , আর প্রতি বছর ডুবছে ২৫ সেন্টিমিটার করে ।

আরো পড়ুন:

যুক্তরাষ্ট্র বেলুচ লিবারেশন আর্মিকে সন্ত্রাসী হিসাবে আখ্যা দিল ।

ব্যারেষ্টার সুমন ‍স্যার স্যালুট আপনাকে । এভাবে প্রতিবাদ ছড়িয়েযাক বাংলা জুড়ে।

রিফাত হত্যাসহ সকল হত্যাকারীদের বিচার দাবী-

0Shares

Check Also

বি এন পি এমপি হারুন সাহেব এর 20 মিনিটের সংসদ কাপানো বক্তব্য – Bangla1News

আমাদের বাহাদুরি – আতিকুর রহমান অমি রাজ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *